• বীমা সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সৃষ্টি বাংলাদেশের সর্বপ্রথম বীমা ব্লগে আপনাকে স্বাগতম
আজ শুক্রবার | ১৫ নভেম্বর, ২০১৯ | ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সময়ঃ ১১:২৯ অপরাহ্ন

Photo
বীমার সূচনা ও পরিচয়

বীমার সূচনা : ইসলামী সাম্রাজ্যের পতন, মানুষের নৈতিক অবক্ষয়, আইন-শৃঙ্খলার অবনতি ও যান্ত্রিক সভ্যতার বিকাশ -সব মিলিয়ে মানুষের জীবনের নিশ্চয়তা এখন সরকার ও রাষ্ট্রের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। শুধু জীবনই নয়, মানুষের তৈরি সম্পদ, মিল, ফ্যাক্টরি, ইন্ডাষ্ট্রি সবকিছুই এখন হুমকির পথে। যে কোনো সময় ঘটে যেতে পারে যে কোনো রকম দুর্ঘটনা। আর একটি দুর্ঘটনাই হয়ে যেতে পারে সারা জীবনের কান্না।

এই হুমকি যে এখন নতুন, তা কিন্তু নয়। প্রাচীন আরব বণিকদের বাণিজ্যিক নৌ-যাত্রায়ও এ হুমকি ছিল। আর সেজন্যই তারা তাদের প্রয়োজনে উদ্ভাবন করেছিলেন ‘সাওকারা’ বা বর্তমান বীমা ব্যবস্থাটির। যার মাধ্যমে কেউ বাণিজ্যিক যাত্রায় ক্ষতিগ্রস্ত হলে বীমা কোম্পানি কর্তৃক ক্ষতিপূরণ পেয়ে যেতেন। কেউ কেউ অবশ্য বলেন যে প্রাচীন গ্রীক সভ্যতায়ই এটি বিদ্যমান ছিল।

বীমার পরিচয় : বীমা শব্দটি উর্দু থেকে বাংলায় ব্যবহৃত হচ্ছে। এর ইংরেজি হলো, insurance. যা ensurance শব্দটি থেকে এসেছে। এর অর্থ : নিশ্চয়তা প্রদান করা। আর এর আরবী হলো عقد التامين.

পরিভাষায় বীমা বা ইন্সুরেন্স হলো, A means of indemnity (A sum of money paid in compensation for loss or injury) against a future occurrence of an uncertain event. অর্থাৎ, ভবিষ্যতে অনিশ্চিত কোনো ক্ষতির বিপরীতে নির্দিষ্ট কিছু টাকা (প্রিমিয়াম) পরিশোধ করা।

এক কথায়, বীমা এমন একটি আর্থিক লেনদেনের চুক্তি, যাতে ভবিষ্যতে কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে তার ক্ষতিপূরণ দেয়ার গ্যারান্টির ভিত্তিতে কিস্তিতে নির্দিষ্ট মেয়াদ পর্যন্ত টাকা গ্রহণ করা হয়ে থাকে।


-- ব্লগার মন্জুর আলী শাহ্ এর অন্যান্য পোস্টঃ --
আমার সম্পর্কে
  • সর্বশেষ ব্লগ
  • জনপ্রিয় ব্লগ
8 7 5 5 2
আজকের প্রিয় পাঠক
1 4 0 7 6 1 1 7
মোট পাঠক