• বীমা সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সৃষ্টি বাংলাদেশের সর্বপ্রথম বীমা ব্লগে আপনাকে স্বাগতম
আজ সোমবার | ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সময়ঃ ১২:১০ পূর্বাহ্ন

Photo
বীমা গ্রাহকদের স্বার্থ সুরক্ষায় ব্যাপক কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

উৎপাদন ও অর্থনীতিকে আরও বেগবান করতে বীমা কোম্পানিগুলোকে আরও কার্যকর ভূমিকা পালনের তাগিদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বীমা শিল্পকে মানবিক কল্যাণে কাজে লাগানো একান্ত অপরিহার্য বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।  

মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) বিকালে রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে ১৫তম আন্তর্জাতিক ক্ষুদ্রবীমা সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।  
 
প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায়ও বীমা বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারে। প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে দেশে বীমা ব্যবস্থা এখনও তেমন নেই। আমি আশা করি আজকের এই অনুষ্ঠানের পর যারা বীমার সঙ্গে সম্পৃক্ত তারা একটি যথাযথ ভূমিকা পালন করবেন। ঝুকিপূর্ণ মানুষগুলো যেন বাঁচতে পারে।  

প্রধানমন্ত্রী বীমা কোম্পানির মালিকদের উদ্দেশ করে বলেন, শুধু মুনাফা অর্জনের দিকে না তাকিয়ে, সমাজের প্রতি যে একটা দায়বদ্ধতা সেদিকে একটু বিশেষভাবে আপনারা দৃষ্টি দেবেন, সেটাই আমরা চাই।  

হাওড় অঞ্চলের কৃষকদের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে আর্থিক ক্ষতি নিরসনের লক্ষ্যে কৃষি বীমা চালু করা হচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, পর্যায়ক্রমে আমরা অন্যান্য ক্ষেত্রে এটা করব।  

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের মানুষের বীমা করার অভ্যাস একটু কম, এটা হলো বাস্তবতা। বীমা দাবি নিষ্পতি- এই শিল্পের একটা পুঞ্জিভূত সমস্যা। এই সমস্যা থেকে বীমা শিল্পকে কীভাবে রক্ষা করা যায় এবং গ্রাহকদের স্বার্থ সুরক্ষার জন্য ব্যাপক কার্যক্রম নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, তথ্যের অপ্রতুলতা গ্রাহকদের জন্য একটা বড় সমস্যা। ফলে বীমা শিল্পের প্রতি গ্রাহকদের আগ্রহ কমে যায় ও অনাস্থার সৃষ্টি হয়। ক্ষেত্র বিশেষে অনেকে প্রতারিতও হন। এ সমস্যা উত্তরণের জন্য সমন্বিত মেসেজিং প্লাটফর্ম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে যা বীমা শিল্পের উইনিফাইড মেসেজিং প্লাটফর্ম (ইউএমপি) নামকরণ করা হয়েছে আর এখন যে ডিজিটাল পদ্ধতি, তাতে এটা অত্যন্ত সহজ।  


-- ব্লগার মন্জুর আলী শাহ্ এর অন্যান্য পোস্টঃ --
আমার সম্পর্কে
  • সর্বশেষ ব্লগ
  • জনপ্রিয় ব্লগ
5 7 6
আজকের প্রিয় পাঠক
1 5 3 9 9 1 1 7
মোট পাঠক