• বীমা সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সৃষ্টি বাংলাদেশের সর্বপ্রথম বীমা ব্লগে আপনাকে স্বাগতম
আজ বুধবার | ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | সময়ঃ ০৬:৩৭ পূর্বাহ্ন

Photo
বেসিক ব্যাংক এমডি খুঁজে পাচ্ছে না

দুর্নীতি ও অনিয়মে জর্জরিত সরকারি মালিকানাধীন এই ব্যাংকের জন্য দেড় মাস আগে এমডি নিয়োগের জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেয়া হয়েছিল। কিন্তু কোনো যোগ্য লোক এখনো এই পদের জন্য আবেদনই করেননি। তাই এখন আবার পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেয়া হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার দুটি দৈনিক পত্রিকায় এমডি নিয়োগের জন্য বিজ্ঞাপন দেয়া হয়। এমডি পাওয়ার জন্য নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে কিছু শর্তেরও পরিবর্তন আনা হয়েছে। : তারপরও এই ব্যাংকের জন্য একজন দক্ষ ও যোগ্য এমডি (ব্যবস্থাপনা পরিচালক) পাওয়া যাবে কি না তা নিয়ে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। সংশ্লিষ্ট এক সূত্র জানিয়েছে, বিগত দিনের পরিচালনা পর্ষদের অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে এই ব্যাংকের অবস্থা দুই বছর ধরে খুবই নাজুক। বছরখানেক ধরে বেসিক ব্যাংকের অর্ধেকেরও বেশি ঋণখেলাপি তালিকায় স্থান পেয়েছে। এ ঋণের পুরোটা উদ্ধার করা কখনোই সম্ভব হবে না। এই পরিস্থিতিতে কোনো পেশাজীবী ব্যাংকারই বেসিক ব্যাংকের দায়িত্ব নিতে চাচ্ছেন না। : পত্রিকায় ছাপানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘রাষ্ট্র মালিকানাধীন বেসিক ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে চুক্তিভিত্তিক অথবা লিয়েনে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের জন্য বাংলাদেশী নাগরিকদের কাছ থেকে আবেদন আহ্বান করা যাচ্ছে। এই পদে আবেদনকারীর ব্যাংকিং পেশায় সক্রিয় কর্মকর্তা হিসেবে কমপক্ষে ১৫ বছরের কর্মঅভিজ্ঞতা এবং ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক/প্রধান নির্বাহী অব্যবহিত পূর্ববর্তী পদে অথবা প্রধান নির্বাহী পদে অথবা উভয় পদে কমপক্ষে এক বছরের কর্মঅভিজ্ঞতা থাকতে হবে। ’ এতে আরো বলা হয়েছে, ‘স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ন্যূনতম স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী হতে হবে। অর্থনীতি, ব্যাংকিং ও ফিন্যান্স কিংবা ব্যবসায় প্রশাসন বিষয়ে উচ্চতর প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা অতিরিক্ত যোগ্যতা হিসেবে বিবেচিত হবে। চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের সময়সীমা হবে তিন বছর। ’ : এই বিষয়ে জানতে চাইলে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের এক কর্মকর্তা নাম না প্রকাশ করার শর্তে বলেছেন, এই ব্যাংকের এমডি পদে নিয়োগের জন্য আমরা একজন ভালো ও দক্ষ লোককে পেতে চাচ্ছি। কিন্তু অবস্থা যা দাঁড়িয়েছে এই পদে কোনো যোগ্য লোক আবেদনই করছেন না। তবুও আমরা চেষ্টা করছি, ভালো লোক পেতে। এ জন্য এমডি পদের জন্য যোগ্যতাও শিথিল করা হয়েছে।   দুর্নীতি ও অনিয়মে জর্জরিত এই ব্যাংকটির এমডি মুহাম্মদ আউয়াল খান গত ১৪ আগস্ট ইস্তাফা দেন। এরপর থেকে পদটি খালি রয়েছে। তার পদত্যাগপত্র গত ৩০ আগস্ট বেসিক ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদে উত্থাপন করা হয়। কিন্তু পদত্যাগপত্রটি গ্রহণ না করে বলা হয়, নতুন এমডি নিয়োগ দেয়ার সাথে সাথে তার পদত্যাগপত্রটি গৃহীত হয়েছে বলে ধরে নেয়া হবে। : জানা গেছে, সমস্যায় জর্জরিত বেসিক ব্যাংকের এমডি পদে যোগদানের জন্য আগ্রহী কাউকে পাওয়া যায়নি। দু-একজনের সাথে এ বিষয়ে কথাও বলা হয়েছে। কিন্তু তারা এই পরিস্থিতিতে এই দায়িত্ব পালন করতে রাজি নন।  



ব্লগটির ক্যাটাগরিঃ ব্যাংকিং নিউজ

-- ব্লগার সাথী আক্তার এর অন্যান্য পোস্টঃ --
আমার সম্পর্কে
  • সর্বশেষ ব্লগ
  • জনপ্রিয় ব্লগ
8 9 0 1
আজকের প্রিয় পাঠক
1 8 9 7 9 3 8 9
মোট পাঠক