• বীমা সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সৃষ্টি বাংলাদেশের সর্বপ্রথম বীমা ব্লগে আপনাকে স্বাগতম
আজ শনিবার | ১৭ এপ্রিল, ২০২১ | ৪ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | সময়ঃ ০৫:২৫ অপরাহ্ন

Photo
এক নজরে প্রগতি লাইফ ইন্স্যূরেন্স পরিচিতি

দেশীয় শতভাগ অনলাইন সেবাপ্রদানকারী বীমা প্রতিষ্ঠান প্রগতি লাইফ ইন্স্যূরেন্স সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে bankbimabartabd.com ও ttvbd.com এর নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি মো: তাওহীদুল হক চৌধুরী এর অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে  ‍"প্রগতি লাইফের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি"

কোম্পানী পরিচিতি: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক অনুমোদিত ও নিয়ন্ত্রিত হয়ে ২০০০ সাল থেকে ‍“প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড” বাংলাদেশে অত্যন্ত সুনামের সাথে বীমা ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। প্রতিষ্ঠানটি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থ মন্ত্রনালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের অধীনে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের সকল নীতিমালা ও সার্কুলার পরিপালন করে এবং বীমা আইন সঠিকভাবে মেনে যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

    উল্লেখ্য যে, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ২০১৪ সালের জারীকৃত বীমা নীতিমালায়  উল্লেখিত ‍“দেশের সম্পদ ও জীবনের নিরাপত্তা শতভাগ বীমার আওতায় নিয়ে আসা” সরকারের উদ্দেশ্যর শতভাগ বাস্তবায়নে প্রতিষ্ঠানটি দৃঢ়তার সাথে কাজ করে যাচ্ছে।

  • পরিচালনা পর্ষদ- প্রগতি লাইফের পরিচালনা পর্ষদে রয়েছেন দেশের স্বনামধন্য ব্যবসায়ী ও শিল্পপতিবৃন্দ। পরিচালনা পর্ষদের সম্মানিত সদস্যগণ যে সকল প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিত্ব করছেন তাদের মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য- পদ্মা গ্রুপ, হোসাফ গ্রুপ, মাল্টিমুড গ্রুপ, প্রো স্টার গ্রুপ, জিটা গার্মেন্টস, চৌধুরী এন্ড সন্স, কেডিএস গ্রুপ, এমকেআর গ্রুপ, চৌধুরী এপ্যারেলস্, বেনলুব (প্রা:) লিমিটেড, আব্দুল মোমেন লিমিটেড, ডব্লিউ এন্ড ডব্লিউ গ্রেইনস্ করপোরেশন অন্যতম।
  • ব্যবস্থাপনা পর্ষদ- কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্বে আছেন আধুনিক বীমা জগতের রূপকার, বাংলাদেশের বীমা অঙ্গনের অত্যন্ত মেধাবী ও অভিজ্ঞ বীমাবিদ জনাব মো: জালালুল আজিম। এছাড়া কয়েকজন অভিজ্ঞ বীমা পেশাজীবীদের নেতৃত্বে একঝাঁক তরুণ ও চৌকষ কর্মীবৃন্দ বীমার সুফল জনগণের দোরগোড়ায় পৌছেঁ দিতে সদা কর্মরত রয়েছেন।
  • প্রগতি লাইফের বৈশিষ্ট্য-
    • প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড ক্রেডিট রেটিং এ+ অর্জনকারী প্রতিষ্ঠান।
    • বীমা গ্রাহকের সেবায় বাংলাদেশে সর্বপ্রথম পুশপুল সার্ভিসের প্রবর্তক।
    • ওয়েবসাইটভুক্ত প্রথম বাংলাদেশী ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী।
    • বিশ্বের বৃহত্তম রি-ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী জার্মানীর মিউরিখ-রি এর সাথে প্রগতি লাইফ এর শুরু থেকেই পুন:বীমা চুক্তি বিদ্যমান। তাই বীমা অংক যত বড়ই হোক না কেন প্রগতি লাইফ দিতে পারে দ্রুত দাবীর নিশ্চয়তা।
    • কোম্পানীর সার্ভিস সেল গুলোতে রয়েছে সর্ম্পূণ কম্পিউটারাইজড সার্ভিস, যাতে গ্রাহক ও বীমা কর্মীরা অতি সহজে তথ্য ও সেবা পেতে পারেন।
    • অভিজ্ঞ কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে রয়েছে নিজস্ব এ্যাকচুয়ারীয়াল বিভাগ, যারা নিজেরাই গ্রহকদের জন্য আকর্ষনীয় ও লাভজনক প্রিমিয়াম রেট প্রনয়নসহ যাবতীয় গাণিতিক হিসাব প্রদানে সিদ্ধহস্ত।
    • সারাদেশে ৩৬৫ টির অধিক অফিসের মাধ্যমে সর্বসাধারণের দোরগোড়ায় বীমা সুবিধা পৌছে দিতে প্রতিনিয়ত অক্লান্তভাবে কাজ করে যাচ্ছে উন্নয়ন বিভাগের লক্ষাধিক কর্মী বাহিনী।
    • ডাচ্-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং(রকেট)ও বিকাশের মাধ্যমে প্রিমিয়ামের প্রদানের সহজ সুবিধা।
    • কোম্পানীর ওয়েবসইটের মাধ্যমে ইস্টার্ণ ব্যাংকের কার্ড ব্যবহার করে ই-পেমেন্ট গেটওয়ে পদ্ধতিতে প্রিমিয়াম জমা করা যায়।
    • EFT (Electric Fund Transfer) পদ্ধতিতে গ্রাহকের যে কোন ব্যাংকের একাউন্ট থেকে প্রিমিয়াম প্রদানের সহজ সুবিধা রয়েছে। যাতে করে ১ জন গ্রাহককে পরবর্তী প্রিমিয়াম প্রদানে চিন্তা করতে হয় না।
    • প্রিমিয়ামের টাকা জমা হওয়ার সাথে সাথে গ্রাহকের মোবাইল নাম্বারে ম্যাসেজ চলে যায়।
    • গ্রাহক যে কোন সময় যে কোন মোবাইল নম্বর থেকে এসএমএস এর মাধ্যমে পলিসির সর্বশেষ হালনাগাদ অবস্থা জানতে পারেন অতি সহজেই।
    • প্রগতি লাইফ ধারাবাহিকভাবে দ্রুত গ্রাহক সেবা প্রদান করে ২০১২ সালে সেঞ্চুরী ইন্টারন্যাশানাল কোয়ালিটি এরা এ্যাওয়ার্ড (গোল্ড ক্যাটাগরী) অর্জন করেছে।
    • ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে ‌‘এ’ ক্যাটাগরীর তালিকাভূক্ত প্রগতি লাইফের শেয়ার মূল্য জীবন বীমা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে শীর্ষস্থানীয়।
  • প্রগতি লাইফের কর্পোরেট গ্রাহক- দেশের শীর্ষস্থানীয় সরকারী-বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়, ব্যাংক, কর্পোরেশনসহ দেশী-বিদেশী তিন শতাধিক প্রতিষ্ঠান প্রগতি লাইফের গ্রুপ বীমার আওতায় বীমাবৃত। যেমন: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, ইস্টওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, গ্রামীন ফোন, বাংলালিংক, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, সামিট গ্রুপ, সিটি ব্যাংক, আইএফআইসি ব্যাংক, লংকা বাংলা ফাইন্যান্স, স্যামসং ইলেক্ট্রনিক্সসহ প্রভৃতি।
  • প্রগতি লাইফের স্বাস্থ্যবীমা কার্ড সুবিধা- বাংলাদেশের সকল বিভাগীয় শহর ও অধিকাংশ জেলার বিভিন্ন হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সাথে প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্স এর কর্পোরেট চুক্তি করা আছে। প্রগতি লাইফের কর্পোরেট গ্রাহক, সুবিধাভোগী, কর্মকর্তা/কর্মচারী ও তাদের পরিবারবর্গ হেলথ কার্ডের মাধ্যমে ঐ সমস্ত হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে চিকিৎসা সেবায় ৪০% পর্যন্ত ডিসকাউন্ট সুবিধা ভোগ করেন।



ব্লগটির ক্যাটাগরিঃ বীমা সচেতনতা

-- ব্লগার Tawhidul Haque Chawdhury এর অন্যান্য পোস্টঃ --
  • সর্বশেষ ব্লগ
  • জনপ্রিয় ব্লগ
1 7 1 1 8
আজকের প্রিয় পাঠক
3 2 8 8 9 9 9 6
মোট পাঠক