• বীমা সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সৃষ্টি বাংলাদেশের সর্বপ্রথম বীমা ব্লগে আপনাকে স্বাগতম
আজ মঙ্গলবার | ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ | ৫ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | সময়ঃ ০১:৫৫ পূর্বাহ্ন

Photo
জীবন বীমা কোম্পানির কর্মীদের কমিশন পুনর্বিন্যাস আইডিআরএর

দেশের জীবন বীমাকারী কোম্পানিগুলোর মাঠপর্যায়ের কর্মীদের সাংগঠনিক কাঠামো ও কমিশন পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে। ১৭ জুন এ বিষয়ে একটি নির্দেশনা জারি করেছে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। মাঠপর্যায়ের সাংগঠনিক কাঠামোয় বিদ্যমান সমস্যাগুলো নিরসন এবং ব্যবস্থাপনা ব্যয় নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে সাংগঠনিক কাঠামো ও কমিশন পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে বলে সার্কুলারে উল্লেখ করা হয়েছে। নতুন নির্দেশনাটি আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হবে।

নির্দেশনাটি বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান, বিএসইসির চেয়ারম্যান ও অর্থমন্ত্রীর একান্ত সচিবসহ অবগতির জন্য সংশ্লিষ্ট সবার কাছে পাঠানো হয়েছে।

সার্কুলার অনুসারে, নতুন সাংগঠনিক কাঠামো অনুসারে পাঁচটির পরিবর্তে তিনটি গ্রেডে কর্মকর্তা নিয়োগ করতে পারবে জীবন বীমা কোম্পানিগুলো। গ্রেড তিনটি হচ্ছে জেনারেল ম্যানেজার (জিএম), ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) ও অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার (এজিএম)।

নতুন কাঠামো অনুসারে, মাঠপর্যায়ে প্রত্যেক ইউনিট ম্যানেজারের অধীনে কমপক্ষে পাঁচজন ফাইন্যান্সিয়াল অ্যাসোসিয়েট থাকবে। প্রত্যেক ব্রাঞ্চ ম্যানেজারের অধীনে কমপক্ষে চারজন সক্রিয় ইউনিট ম্যানেজার থাকবে। প্রত্যেক সুপারভাইজারের অধীনে তিনজন উন্নয়ন কর্মকর্তা থাকবে। অর্থাৎ একজন জিএমের অধীনে কমপক্ষে তিনজন ডিজিএম, একজন ডিজিএমের অধীনে কমপক্ষে তিনজন এজিএম, একজন এজিএমের অধীনে কমপক্ষে তিনজন ব্রাঞ্চ ম্যানেজার থাকবে।

প্রথম বছরের প্রিমিয়াম থেকে ফাইন্যান্সিয়াল অ্যাসোসিয়েটরা যে হারে কমিশন পাবে তার ওপর ইউনিট ম্যানেজার ৩০ শতাংশ বেসিক কমিশন ও ৫ শতাংশ বিশেষ কমিশনসহ মোট ৩৫ শতাংশ কমিশন পাবে। অন্যদিকে ব্রাঞ্চ ম্যানেজাররা পাবে ২০ শতাংশ বেসিক কমিশন ও ১০ শতাংশ বিশেষ কমিশনসহ মোট ৩০ শতাংশ কমিশন। সুপারভাইজরি লেভেলের কর্মকর্তাদের মধ্যে জিএম ১৪ শতাংশ, ডিজিএম ১৬ শতাংশ ও এজিএম ১৮ শতাংশ কমিশন পাবে।

সার্কুলারে আরো বলা হয়েছে, সহকারী ব্যবস্থাপনা পরিচালক, উপব্যবস্থাপনা পরিচালক, অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে কমিশনভিত্তিক নিয়োগ বা পদায়ন করা যাবে না। এছাড়া কমিশনভিত্তিক জনবল নিয়োগের ক্ষেত্রে বীমা আইন, ২০১০-এর ৫৮ ধারা যথাযথভাবে অনুসরণ করতে হবে।


-- ব্লগার Admin Post এর অন্যান্য পোস্টঃ --
  • সর্বশেষ ব্লগ
  • জনপ্রিয় ব্লগ
1 7 0 1
আজকের প্রিয় পাঠক
3 6 1 3 4 4 9 6
মোট পাঠক