• বীমা সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সৃষ্টি বাংলাদেশের সর্বপ্রথম বীমা ব্লগে আপনাকে স্বাগতম
আজ শুক্রবার | ১৪ মে, ২০২১ | ৩০ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | সময়ঃ ০২:৫৪ পূর্বাহ্ন

Photo
কর্পোরেট এজেন্টের লাইসেন্স প্রদানের নির্দেশনার কতিপয় গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

কর্পোরেট এজেন্ট নিয়োগের উদ্যোগ নিয়েছে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ) । এ লক্ষ্যে করপোরেট এজেন্টের লাইসেন্স প্রদানের নির্দেশনা’র একটি খসড়া প্রস্তুত করেছে বীমাখাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা। এই নির্দেশনায় বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষ (কর্পোরেট এজেন্টের লাইসেন্স প্রদান)নির্দেশনা ২০২০ নামে অভিহিত হইবে।

কর্পোরেট এজেন্টের লাইসেন্স প্রদানের সংক্ষিপ্ত বৈশিষ্ট্য:

১) কারা কর্পোরেট এজেন্ট লাইসেন্স পাবে? বীমা উন্নয়ন ও নিয়নন্ত্রন কর্তৃপক্ষ কর্পোরেট এজেন্টের লইসেন্স প্রদানের নির্দেশনা (খসড়া)অনুসারে “প্রতিষ্ঠান“ অর্থ (অ) একটি অংশীদারি প্রতিষ্ঠান অথবা (আ) কোম্পানী আইন (১৯৯৪ সালের ১৮নং আইন) এর অধীনে গঠিত একটি কোম্পানী অথবা ১) ব্যাংক কোম্পানী আইন ১৯৯১ এর অধীনে গঠিত ব্যাংক কোম্পানী, ২) সমবায় সমিতি আইন ২০০১ এর অধীনে গঠিত নিবন্ধিত একটি সমবায় সমিতি অথবা ৩) নিবন্ধিত এনজিও। এরা কর্পোরেট এজন্টের লাইসেন্স করতে পারবে। তবে শর্ত থাকে যে, প্রতিষ্ঠানের মূল উদ্দেশ্য বীমা ব্যবসা আহরণ হতে পারবে না।

২) যোগ্যতা: প্রতিষ্ঠানের প্রকৃতির উপর নির্ভর করিয়া কর্পোরেট এজেন্টের জন্য আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানের অংশিদারীত্ব চুক্তি, মেমোরেন্ডাম অব এসোসিয়েশন বা উক্ত প্রতিষ্ঠানের সংগঠনের প্রমাণ স্বরূপ অন্য কোন দলিলে প্রতিষ্ঠানের উদ্দেশ্য হিসেবে কর্পোরেট এজেন্ট হিসেবে বীমা ব্যবসা আহরণ ও সংগ্রহ করিতে পরিবে মর্মে উল্লেখ থাকিতে হইবে।

৩) শিক্ষাগত যোগ্যতা: করপোরেট এজেন্টের লাইসেন্স প্রদানের নির্দেশনা’র খসড়ায় আবেদনকারীর যোগ্যতা হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে- করপোরেট ইন্স্যুরেন্স এক্সিকিউটিভ এবং নির্ধারিত ব্যক্তিকে অন্যূন এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

৪) বাস্তব প্রশিক্ষনঃ যখন কোন ব্যক্তি প্রথম বারের জন্য নির্ধারিত ব্যক্তি হিসেবে সনদের জন্য আবেদন করেন, তখন তাহাকে অনুমোদিত প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান হইতে অন্যূন্ন পঁচাত্তর (৭৫) ঘন্টা বাস্তব প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করিতে হইবে। এই প্রশিক্ষণের মেয়াদকাল এক থেকে দুই সপ্তাহ জুড়ে বিস্তৃত হইতে পারে। তবে উপ-প্রবিধান (২) এ বর্ণিত যোগ্যতা থকিলে তাকে কর্তৃপক্ষ অনুমোদিত কোন প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান হতে অন্যূন পচিশ (২৫) ঘন্টা বাস্তব প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করিলেই হবে।

৫) পরীক্ষাঃ করপোরেট ইন্স্যুরেন্স এক্সিকিউটিভ এবং নির্ধারিত ব্যক্তি হিসেবে আবেদনকারী ব্যক্তিগণকে ইন্স্যুরেন্স একাডেমি অথবা অন্য কোন অনুমোদিত প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান কর্তৃক পরিচালিত বীমা ব্যবসা সংক্রান্ত নিয়োগ-পূর্ব পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

৬) যোগ্যতাঃ প্রতিষ্ঠানের প্রকৃতির ওপর নির্ভর করে করপোরেট এজেন্টের জন্য আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানের অংশিদারীত্ব চুক্তি, মেমোরেন্ডাম অব এসোসিয়েশন বা উক্তি প্রতিষ্ঠানের সংগঠনের প্রমাণ স্বরূপ অন্য কোন দলিলে প্রতিষ্ঠানের উদ্দেশ্য হিসেবে করপোরেট এজেন্ট হিসেবে বীমা ব্যবসা আহরণ ও সংগ্রহ করতে পারবে মর্মে উল্লেখ থাকতে হবে। তবে এক্ষেত্রে শর্ত থাকে, যে প্রতিষ্ঠানের মূল উদ্যেশ্য বীমা ব্যবসা আহরণ হতে পারবে না।

৭) প্রদেয় ফিঃ কর্পোরেট এজেন্ট হিসাবে আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানকে লাইসেন্স ইসও্য এবং নবায়ন উভয়ের জন্য কর্তৃপক্ষের নিকট ১০০০ (এক হাজার) টাকা প্রদান করতে হবে। কোন কর্পোরেট এজেন্ট কর্তৃক নিযুক্ত প্রত্যেক নির্ধারিত ব্যক্তিকে কর্তৃপক্ষের নিকট প্রদেয় ১০০০ (এক হাজার) টাকাসহ বীমাকারীর মনোনীত ব্যক্তির মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

৮) পারিশ্রমিকঃ ৫৮(৩) কোন বীমা এজেন্টকে তাহার সংগৃহীত কোন পলিসির বা পলিসিসমূহের ক্ষেত্রে, নিম্নবর্ণিত সীমার অধিক কমিশন বা অন্য কোন প্রকার পারিশ্রমিক পরিশোধ করা বা পরিশোধ করিবার উদ্দেশ্যে কোন চুক্তি করা যাইবে না। প্রত্যেক নির্ধারিত ব্যক্তি হবেন সংশ্লিষ্ট কর্পোরেট এজেন্টের একজন কর্মচারি। একজন নির্ধারিত ব্যক্তির পারিশ্রমিক কর্পোরেট এজেন্ট কর্তৃক নির্ধারিত হবে।

মোঃ মানসুর আলম সিকদার
বীমা লেখকঃ সাধারণ বীমার মূলতত্ত্ব



ব্লগটির ক্যাটাগরিঃ পাঠক কলাম

-- ব্লগার মোঃ হাসান এর অন্যান্য পোস্টঃ --
  • সর্বশেষ ব্লগ
  • জনপ্রিয় ব্লগ
1 7 5 5
আজকের প্রিয় পাঠক
3 3 4 9 6 6 6 8
মোট পাঠক